Saturday, January 12, 2008

জশন-এ-জুলুস

জশন-এ-জুলুস বা জশনে জুলুস (جشن جلوس)। অনেক সময় আবার বানানভেদে জুলুছ। চোখে পড়ে একটি বড় শব্দবন্ধ হিসেবে — জশনে জুলুসে ঈদ-ই-মিলাদুন্নবী (প্রচলিত বানানে), নবীর (পৃথিবীতে) আগমন উপলক্ষ্যে সমাবেশে আনন্দোৎসব। বাংলায় আরবি-ফারসি শব্দের অভিধানে শব্দ দুটি আলাদা ভাবে পাওয়া যায় — জশন (جشن) এবং জুলুস (جلوس)। জশন শব্দের অর্থ বাংলায় দাঁড়ায় আনন্দোৎসব; জুলুস অর্থ উপবেশন, একত্র হওয়া বা সামাজিক সমাবেশ। হিন্দিতে লেখা হয় জশ্ন (जश्न) বা জশন (जशन)। যারা এই অনুষ্ঠান পালন করে তাদের মতে জুলুস রূপকঅর্থে মিছিল বা শোভাযাত্রাকেও বোঝায়। জশনে জুলুস শব্দবন্ধটি কখনও আবার উর্দু বা ফারসিতে অভিষেক উৎসবকেও বোঝায়।

দুই শব্দের মাঝে এ বা ই ফারসির ইজ়াফাত (اضافه), যার আরবির ইজ়াফা থেকে আসা। উর্দুতেও বহুলব্যবহৃত। শব্দটির অর্থ যোগ, আর ব্যবহৃত হয় দুই বা তার বেশি বিশেষ্যের শব্দবন্ধে যার প্রথম শব্দের অর্থ প্রাধান্য পেয়ে পরের শব্দের সাথে সম্বন্ধিত হয়, যেমন চোখের পানি, আব্‌-এ-চশ্‌ম্‌ (آب چشم), উর্দুতে, বা মা'উল আইন (ماء العين), আরবিতে,বাংলায় যদিও ক্রমটি পাল্টে যায়। তবে উর্দুতে সাধারণত অশ্রুকে বলা হয় আঁসু (آنسو) আর আরবিতে দাম'উ (دمع)।

জুলুস শব্দটি আরবি ক্রিয়া জালাসা (جلس) বা বসা থেকে এসেছে, ফারসিতে। আর জশন শব্দটি পুরনো ফারসি: পহলবিতে yaśn, আবেস্তায় yaśna, ব্যুৎপন্ন yaz থেকে, যা কিনা সংস্কৃত যজ্‌ (यज्‌) এর সমগোত্রীয়। এই যজ্‌ থেকেই সংস্কৃত যজ্ঞ (यज्ञ) শব্দটি এসেছে; এসেছে সংস্কৃত যজমান (यजमान), যা হিন্দিতে জজমান (जजमान)।

1 comment:

dibyajyoti said...

জুলুস শব্দটা বাংলায় অতটা বহুলপ্রচলিত না হলেও, ওই একই আরবি ত্রি-বর্ণ ধাতু জালাসা (جلس) থেকে ব্যুত্‍‌পন্ন "মজলিস" (مجلس) শব্দটা কিন্তু আমরা সবাই বুঝি, এবং এতে "বসা" অর্থটাও খুব স্পষ্ট।

আধুনিক ইরানে "মজলিস" ("ম্যাজলেস" - আধুনিক ফারসি উচ্চারণে) বলতে "পার্লামেণ্ট"-ও বোঝায়।